এই মাত্র পাওয়া :

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১

ক‌রোনারকা‌লে  অন্ধ-প্রতিবন্ধীদের প্র‌তি মডেল গ্রুপের মানবিকতা

বিভাগ : সংবাদ প্রকাশের সময় :৩ মে, ২০২১ ৯:৫১ : অপরাহ্ণ

কামাল হো‌সেন, নারায়ণগঞ্জ:

বিশ্বজুড়ে আজ করোনা মহামারি হঠাৎ পরিবর্তিত জীবনে সচেতনতা ও মানবিকতার মাঝে এক দ্বন্দ্ব ঢুকে গেছে। কখনো তা সূক্ষ কখনো তা বাস্তবতার দেয়াল হয়ে দাঁড়ায়। মানবিকতা বজায় রেখে সচেতন হওয়া আর অতি সচেতনতার নামে অমানবিক হওয়া—দুটো বিষয় পরস্পর মুখোমুখি আজ। করোনাভাইরাসের প্রকোপে নানামুখী সংকটে আছে সাধারণ মানুষ। এমন দুঃসম‌য়ে মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে অন্ধ ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের হাতে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী তুলে দিলেন দেশের অন্যতম বৃহৎ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান মডেল গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদুজ্জামান মাসুদ।
সোমবার (৩ মে) সকাল ১০টায় নারায়ণগ‌ঞ্জের তল্লাস্থ মডেল গ্রুপ বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী প্রগতি সংস্থা নারায়ণগঞ্জের মাধ্যমে প্রায় ২ শতাধিক অন্ধ ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের ওই সহায়তা প্রদান ক‌রেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মডেল গ্রুপ এর পরিচালক কানাই সরকার ও অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ ৷
মডেল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদুজ্জামান মাসুদ বলেন, যে কোন দূর্যোগ, দূর্ঘটনা, মানবিক সেবায় ও করোনার ভাইরাসের প্রথম ঢেউ’য়ে আপনাদের পাশে ছিল মডেল গ্রুপ। করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ সহ আগামীতে যেকোন সমস্যায় মডেল গ্রুপ আপনাদের পাশে থাকবে ও আছে। মডেল গ্রুপের সকলের জন্য দোয়া করবেন যেন, আপনাদের মানবসেবায় সব সময় নিয়োজিত থাকে।
উল্লেখ্য, গত বছরে করোনাভাইরাস মহামারিতে নারায়ণগঞ্জে প্রায় ৫ কোটি টাকার সহায়তা কর্মসূচি দি‌য়েছিলো দেশের অন্যতম বৃহৎ এই পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান মডেল গ্রুপ । খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় মডেল গ্রুপের কর্মরত ১৫ হাজার শ্রমিকদের মাঝে দেড় কোটি টাকার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে। চিকিৎসা সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান কর্মসূচিতে নারায়ণগঞ্জে কর্তব্যরত স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা স্বীকৃত মানসম্মত ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) সরবরাহ করা হয়। যেমন সুরক্ষা পোশাক, হ্যান্ড গ্লাভস, সার্জিক্যাল মাস্ক, গগলস ও প্রোটেকটিভ শিল্ড। অর্থ সহায়তা কর্মসূচিতে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে ১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করে। এ কর্মসূচি অনুযায়ী মডেল গ্রুপ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীকে ২০ লাখ, নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা) আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমানকে ২০ লাখ, নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানকে ২০ লাখ, জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিনকে ২০ লাখ, পুলিশ সুপার মো. জায়েদুল ইসলামকে ১০ লাখ, মধ্যবিত্ত নাগরিকদের জন্য ২০ লাখ, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীদের জন্য আরও ১০ লাখ, ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীদের ১০ লাখ, মডেল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদুজ্জামানের জন্মস্থান এনসিসি ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জমসের আলী ঝন্টুকে ২০ লাখ, এনসিসি ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাসেম শকুকে ৫ লাখ এবং ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদকে ৩ লাখ টাকা দিয়েছে। 

Print Friendly and PDF

ফেইসবুকে আমরা