এই মাত্র পাওয়া :

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১

সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচন

নির্বাচনি ক্যাম্পে হামলা অগ্নিসংযোগ ও হুমকির অভিযোগে নৌকা ও ধানের শীষের শতাধিক নেতাকর্মিদের বিরুদ্ধে পাল্টপাল্টি মামলা

বিভাগ : রাজনীতি প্রকাশের সময় :১২ জানুয়ারি, ২০২১ ৯:৩১ : অপরাহ্ণ

বগুড়া প্রতিনিধি :

বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের নির্বাচনি অস্থায়ী ক্যাম্পে হামলা অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুরের অভিযোগে ৪৭ জনের নাম উল্লেখ করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে এবং ধানের শীষ প্রতিকের নির্বাচনি ক্যাম্প ভাংচুর, পোষ্টার ছেঁড়া ও হুমকি সংক্রান্ত অভিযোগে ২৪ জনের নাম উল্লেখ করে দুই মেয়র প্রার্থির পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের হয়েছে। গতকাল ১২ জানুয়ারী মঙ্গলবার রাতে সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচনি আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের মেয়র প্রার্থি আশরাফুল ইসলাম ও বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতিকের মেয়র প্রার্থি তোফাজ্জল হোসেন বাদি হয়ে শতাধিক নেতাকর্মিদের বিরুদ্ধে আদমদীঘি থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের ঘটনায় পৌরসভায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে।
জানাযায়, আগামী ১৬ জানুয়ারী সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচন ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থি আশরাফুল ইসলাম মন্টু প্রচারণার জন্য ১নং বশিপুর আদর্শপাড়ায় অস্থায়ী নির্বাচনি ক্যাম্প করেন। গত ১০ জানুয়ারী রাত ১০টায় বিএনপির ধানের শীষ সমর্থিত মেয়র প্রার্থি তোফাজ্জল হোসেনের পক্ষের ৫০/৬০জন নেতাকর্মি নৌকা প্রতিকের ওই নির্বাচনে ক্যাম্পে অর্তকিত হামলা চালিয়ে ভাংচুর বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি সম্বলিত নৌকা প্রতিকের পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলা ও অগ্নিসংযোগে পুড়ে ফেলা হয় বলে মামলায় বলা হয়। এ ঘটনায় ৪৭ জনের নাম উল্লেখ করে মেয়র প্রার্থি আশরাফুল ইসলাম মন্টু নিজেই বাদি হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেন। মামলানং ৬। অপরদিকে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের মেযর প্রার্থি তোফাজ্জল হোসেনের ৯ জানুয়ারী ৪ টি নির্বাচনি অস্থায়ী ক্যাম্প ভাংচুর, পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলা, প্রার্থিসহ নেতাকর্মিদের হুমকি প্রদান সংক্রান্ত অভিযোগে মেয়র প্রার্থি তোফাজ্জল হোসেন নিজেই বাদি হয়ে ২৪জনের নাম উল্লেখ করে থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলঅ নং ৫। ধানের শীষের মেয়র প্রার্থি তোফাজ্জল হোসেন বলেন, অগ্নিসংযোগের ঘটনাটি সাজানো। নৌকার মেয়র প্রার্থি আশরাফুল ইসলাম বলেন প্রতিন্দন্দ্বি প্রার্খির অভিযোগ সঠিক নয়। আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ জালাল উদ্দীন জানান, নির্বাচন অফিস থেকে পাওয়া দুই মেয়র প্রার্থির অভিযোগের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয়েছে।

Print Friendly and PDF

ফেইসবুকে আমরা