এই মাত্র পাওয়া :

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১

বাবার কোল করে শেষ যাত্রা নাইভিন ইসলামের

বিভাগ : সিলেট প্রতিদিন প্রকাশের সময় :১০ জুন, ২০২১ ১১:০৭ : পূর্বাহ্ণ

সিলেট ব্যুরো :

২-৩ মাস আগে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ হয় মাজহারুল ইসলাম ডালিমের সাথে। কথা প্রসঙ্গে জানতে পারলাম তিনি ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন সন্তানদের নিয়ে। আমেরিকা প্রবাসী সন্তানরা দেশে আসার পর তাদেরকে ইসলামী শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলছেন। আলাপ চারিতার সময় জানালেন তাঁর সন্তানরা ইসলামী শিক্ষাকে খুবই গুরত্ব দিয়েছে। ইসলামী শিক্ষায় পারদর্শী হয়ে উঠার জন্যে সবাই আন্তরিকতার সাথে অধ্যায়ন করছেন। এই অবস্থায় তিনি তাঁর সন্তানদেরকে সময় দিচ্ছেন। কিন্তু দুইদিন আগে আড়াই বছর বয়সী এক সন্তান মাজহারুল ইসলাম ডালিমসহ পরিবারের সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে।

মাজহারুল ইসলাম ডালিম সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য। সিলেট শহরতলির খাদিমপাড়া ইউনিয়নের জনপ্রিয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ছিলেন। শহরতলির শাহপরান এলাকার খিদিরপুর গ্রামে মাজহারুল ইসলাম ডালিমের বাড়ি।

মাজহারুল ইসলাম ডালিমের আড়াই বছর বয়সী কন্যা নাইভিন ইসলামের হৃদয়বিদারক শেষ যাত্রা হয় ৮ জুন।

জন্মলগ্ন থেকে নাইভিন ইসলামের হার্টের সমস্য ছিলো। চিকিৎসার জন্য বাবা মাজহারুল ইসলাম ডালিম তাকে ভারতে উন্নত চিকিৎসা করিয়েছিলেন। অপারেশনও করিয়েছিলেন। আগামী সেপ্টেম্বরে সবাইকে নিয়ে আমেরিকাতে যাওয়ার কথা ছিল।

৭ জুন ইকো করিয়েছিলেন। ৮ জুন মঙ্গলবার ৩টা ৪০ মিনিটে সিলেটের ওয়েসিস হাসপাতালে মা-বাবার কাছ থেকে পরপারে চলে যায় নাইভিন।

মঙ্গলবার বাদ এশা জানাযা শেষে তাঁদের পারিবারিক কবরস্থানে দাদা, দাদীর পাশে সমাহিত করা হয় নাইভিনকে।

নাইভিন ইসলামকে তাঁর বাবা খুবই আদর সোহাগ করে সাদা কাফনে মুড়িয়ে কোলে করে নিয়ে এশার নামাজের আগে মসজিদে হাজির। এশার নামাজ ও জানাযা পড়ে আবার তার বাবা খুবই আদর সোহাগের সাথে কোলে করে কবরস্থানে নিয়ে দাফন করলেন। বাবার কোলে করে শেষ যাত্রা নাইভিনের।

Print Friendly and PDF

ফেইসবুকে আমরা