এই মাত্র পাওয়া :

ঢাকা, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

সৈয়দপুরে পৌর কাউন্সিলর কাজী হায়দার আলীর বিরুদ্ধে রেলের  নোটিশ

বিভাগ : সিলেট প্রতিদিন প্রকাশের সময় :৭ এপ্রিল, ২০২১ ৮:৩৯ : অপরাহ্ণ



মোতালেব হোসেন,:

সৈয়দপুর ও পার্বতীপুরের রেল ফিল্ড কানুনগো অফিস সূত্রে জানা যায় যে সৈয়দপুরে রেলওয়ের উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুরুজ্জামান গত ২১ শে মার্চ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। পরিচালনাকালে সৈয়দপুর পৌরসভার প্রয়াত মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার রেলের জমিতে অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে সুকৌশলে জাতীয়তাবাদী আওয়াসীরীগ নেতাদের ম্যানেজ করে রেলের জমি বিদেশী এনজিও এসকেএস কে বরাদ্দ দিয়ে উক্ত জমির মূল তথ্য গোপন করে কোটি টাকার প্রজেক্ট বরাদ্দ নিয়ে কমিশন বানিজ্য করেছিলেন। তা ২১ শে মার্চ রেলের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উক্ত প্রজেক্ট বন্ধ ঘোষনা করে রেলের জমি নিজ আয়ত্বে নেন এবং কেমন করে রেলের জমি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় নীলফামারী শাখা প্রজেক্টটির অনুমোদন দেয় তাতে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেন।
উক্ত প্রজেক্টের পাশেই রেলের ২১.৬০ একর জমি স্থানীয় আওয়ামী ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী হায়দার আলীর দখলে থাকা জমি উদ্ধার করে প্রকৃত লীজ গ্রহীতাকে দখল বুঝিয়ে দেন এবং আজ ৭ই এপ্রিল রেল কানুনগো জিয়াউল হক জিয়া জানান যে উক্ত কাউন্সিলর রেলের জমি দীর্ঘদিন অবৈধ দখলে রাখার কারণে ৮৬ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবী করে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। উক্ত টাকা পরিশোধে ব্যার্থ হলে তার বিরুদ্ধে সার্টিফিকেট মামলা করা হবে। এব্যাপারে কাজী হায়দার আলীর মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন আদালতে মামলা করেছি এসি ল্যান্ড আমাদের জমির খাজনা এখনো নেয়নি এবং নোটিশ পাওয়ার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।
জিয়াউল হক জিয়া আরো জানান আমি সরকারের একজন কর্মচারী, সরকারী স্বার্থে দলমত উর্দ্ধে থেকে কাজ করবো, উপরের নির্দেশ অবৈধ দখলদাররা যতবড়ই ক্ষমতাশালী হোক না কেন তাদের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে তাই আমি আমার দায়িত্বে কোন প্রকার অবহেলা না করে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে পিছপা হবো না।
বিঃদ্রঃ আগামী সংখ্যায় আসছে রেল উচ্ছেদ অভিযানে বাধা প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে রেলের দূদকে অভিযোগ।

Print Friendly and PDF

ফেইসবুকে আমরা