এই মাত্র পাওয়া :

ঢাকা, রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১

সীতাকুণ্ডে প্রাণিজ পুষ্টি নিরাপত্তা ও আত্মকর্মসংস্থান বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও সেমিনার  সম্পন্ন 

বিভাগ : দেশের খবর প্রকাশের সময় :৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ৬:১৩ : অপরাহ্ণ

এম কে মনির, সীতাকুণ্ড :
বর্তমানে দেশে নিরাপদ মাংসের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর নিষিদ্ধ রাসায়নিক দ্রব্য, স্টোরয়েড, হরমোন, এন্টিবায়োটিক ব্যতীত নিরাপদ পদ্ধতিতে  গবাদিপশু হৃষ্টপুষ্টকরণ কার্যক্রম গ্রহন করেছে। মেধাবী জাতি গঠন, মাংস ও চামড়া রপ্তানি করে  বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন,  ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদোক্তা তৈরির মাধ্যমে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর  জীবনমান উন্নয়ন, নারী উদোক্তা তৈরির মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে “বেকারত্ব ও দারিদ্র্যের অবসান, গরু হৃষ্টপুষ্টকরণ-ই সমাধান ” এই স্লোগানকে মুখ্য করে সীতাকুণ্ডে ” প্রাণিজ নিরাপত্তা ও আত্মকর্মসংস্থানে প্রাণিসম্পদের ভূমিকা”র বাস্তবায়নে গরু হৃষ্টপুষ্টকরণে জনসচেতনতামূলক ৩ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ ও ২ ঘন্টার সেমিনার সম্পন্ন  হয়েছে। ৩ ফেব্রুয়ারী বুধবার  বেলা এগারোটায় উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে প্রশিক্ষণের সমাপনী দিনের অন্তভূক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়। উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা. শাহজালাল মুহাম্মদ ইউনূস এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রাণিসম্পদ দপ্তরের  কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। 
প্রশিক্ষণ ও সেমিনারে গরু হৃষ্টপুষ্টকরণের উদ্দেশ্য,  সুবিধাসমূহ,ফলাফল, গরু নির্বাচন,নির্বাচিত গরুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও কৃমি মুক্তকরণ,গরুর বাসস্থান, গোয়াল ঘর নির্মাণ ও জায়গার পরিমাণ, রোগ প্রতিরোধে টিকা প্রদান,পরিচর্যা,খাদ্য ও পানি, হৃষ্টপুষ্টকরণে ইউরিয়া মিশ্রিত খড় প্রস্তুুতকরণ,দানাদার খাদ্য মিশ্রণ, গরুর ওজন নির্ণয়সহ গবাদিপশু হৃষ্টপুষ্টকরণে করণীয় বিভিন্ন বিষয়ে অবহিত করা হয়। 
এসময় সীতাকুণ্ড উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা. শাহজালাল মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, গরু হৃষ্টপুষ্টকরণ একটি আধুনিক, বিজ্ঞানসম্মত ও লাভজনক পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে অল্প সময়ে গরু হৃষ্টপুষ্ট করণ করে অধিক লাভে বিক্রয় করে মুনাফা অর্জনে সক্ষম।
গরু হৃষ্টপুষ্টকরণে কম মূলধন ও কম জায়গার প্রয়োজন হয় বলে যেকেউ এটি প্রয়োগ করতে পারে। লোকসানের ঝুঁকি কম থাকে বলে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ বেশি। এতে বেকারত্ব লাঘব হয়ে দারিদ্র্য দূরীকরণ সম্ভব হবে। এসময় তিনি আরো বলেন, সীতাকুণ্ড উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর খামারীসহ বেকার নারী-পুরুষদের প্রশিক্ষণ ও সনদ প্রদানের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছে। পাশাপাশি সরকারি সেবা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে উপজেলা প্রাণিসম্পদ সদা সচেষ্ট ও আন্তরিক। বর্তমানে এই উপজেলায়  প্রাণিচিকিৎসা অতিতের চেয়ে আরো বেগবান বলে জানান তিনি। 
অনুষ্ঠানে সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায় বলেন, গরু হৃষ্টপুষ্ট করণ একটি লাভজনক পদ্ধতি। এতে কম সময়ে অধিক লাভ সম্ভব। আমাদের সরকার প্রাণিসম্পদ বৃদ্ধি ও প্রাণিজ আমিষের সরবরাহ নিশ্চিত করতে নানা উদ্যোগ হাতে নিয়েছে। সেবার পরিধি বাড়াতে সরকার মৎস ও প্রাণি সম্পদকে আলাদা দপ্তরের মর্যাদা দিয়েছে। খামারীদের জন্য প্রশিক্ষণ, ঋণ প্রদান, চিকিৎসা সেবাসহ প্রাণিসেবার মানোন্নয়নে সরকার উদ্যোগী।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আয়োজনে ও মৎস ও  প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের আধুনিক প্রযুক্তিতে গরু হৃষ্টপুষ্ট করণ প্রকল্পের অর্থায়নে অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষণ ও সেমিনারে সীতাকুণ্ডের বিভিন্ন ইউনিয়নের অর্ধশত খামারী ও বেকার নারী-পুরুষরা অংশ নেন। 




Print Friendly and PDF

ফেইসবুকে আমরা