ঢাকা, শুক্রবার ১২ অগাস্ট ২০২২, ২৮শে শ্রাবণ ১৪২৯

ব্যাঙের ছাতার মতো গজাচ্ছে স্কুল-কলেজ, মান-পরিবেশ নিয়ে প্রশ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক : | প্রকাশের সময় : বুধবার ৩ অগাস্ট ২০২২ ১২:১৮:০০ অপরাহ্ন | শিক্ষা

 

ঢাকা মহানগরের আনাচে-কানাচে ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে উঠছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সরকারি অনুমোদন ছাড়াই অধিকাংশ স্কুল-কলেজ চলছে পাড়া-মহল্লার অলিগলি ও প্রধান সড়কের পাশের ভবনে। প্লে-গ্রুপ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক স্তর (এইচএসসি) পর্যন্ত পাঠদান করা হচ্ছে এসব প্রতিষ্ঠানে। স্বল্প জায়গায় গড়ে ওঠা এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষার্থীদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশ। এমনকি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভবন থেকে পড়ে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে।

গত মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে মোহাম্মদপুরের এসএফএক্স গ্রিনহেরাল্ড স্কুলের ছাদ থেকে পড়ে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। মো. ইশরাক মঞ্জুর (১৭) নামে ওই শিক্ষার্থী ওই বিদ্যালয়ের ‘এ’ লেভেলের ছাত্র ছিল।

ইশরাক মঞ্জুরের বাবা মো. মঞ্জুরুল হাসান বলেন, আমার দুই ছেলের মধ্যে ইশরাক মঞ্জুর বড়। সে এ লেভেলের ছাত্র ছিল। একটু রাগী ও চুপচাপ স্বভাবের। প্রয়োজন ছাড়া খুব বেশি কথা বলতো না। তবে ছাত্র হিসেবে বেশ ভালো ছিল। পড়ালেখা নিয়ে তার মা তাকে মাঝে মধ্যে একটু জোরাজুরি করতো। এছাড়া অন্য কোনো সমস্যা ছিল না।

তবে ইশরাক মঞ্জুরের মৃত্যুর বিষয়ে গ্রিনহেরাল্ড স্কুলের কেউ কথা বলতে রাজি হননি।

ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, শহরের অলিগলি, পাড়া-মহল্লায়, প্রধান সড়কের ওপর বিভিন্ন ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হয়েছে। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধিকাংশেরই নেই কোনো অনুমোদন। শিক্ষার পরিবেশ, ভালো মানের শিক্ষক ছাড়াই চলছে এসব প্রতিষ্ঠান। এলাকার গৃহিণী ও শিক্ষার্থীদের দিয়ে চলছে পাঠদান । নামমাত্র বেতনে তারা সেখানে শিক্ষকতা করেন। এর বাইরে শিক্ষার্থীদের কোচিং করিয়ে বাড়তি আয় করেন।

দেখা যায়, অনুমোদনহীন এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অন্ধকার রুমে ক্লাস নেওয়া হচ্ছে। দিনেও সূর্যের আলো পৌঁছায় না এসব শ্রেণিকক্ষে। তার ওপর স্কুল কর্তৃপক্ষ বাড়তি আয় করতে শিক্ষার্থীদের নিম্নমানের প্রকাশনীর মানহীন বই কিনতে বাধ্য করে। এসব পাঠ্যবইয়ের কোনো গুরুত্ব না থাকলেও জোর করে সেগুলো পড়তে বাধ্য করা হচ্ছে।