ঢাকা, সোমবার ১৭ জুন ২০২৪, ২রা আষাঢ় ১৪৩১

সার্ভার জটিলতায় শুরুই হয়নি একাদশে ভর্তির আবেদন

শিক্ষা ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : রবিবার ২৬ মে ২০২৪ ১০:০৫:০০ অপরাহ্ন | শিক্ষা

চলতি বছর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির অনলাইন আবেদন শুরুর কথা ছিল রোববার (২৬ মে) সকাল ৮টায়। তবে সার্ভার জটিলতায় তা শুরু করা যায়নি। শিক্ষার্থীরা দফায় দফায় নির্ধারিত ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টা করেও কেউ আবেদন করতে পারেনি।

 

এদিন দুপুরে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি এবং ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার জানান, সন্ধ্যা ৬টা থেকে শিক্ষার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।.

 

 

পুনরায় ঘোষিত সে সময় পার হলেও কেউ আবেদন করতে পারেনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় আবারও নতুন সময়ের কথা জানান। তিনি বলেন, ‘সার্ভার জটিলতায় পড়েছি আমরা। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম এ নিয়ে কাজ করছে। রাত ৮টা থেকে আশা করছি শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে।’

 

তবে রাত ৮টায় নির্ধারিত ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টা করেও শিক্ষার্থীরা ব্যর্থ হচ্ছে বলে জানা গেছে। এ প্রতিবেদক নিজেও দফায় দফায় ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

 

রাত ৮টার পর এ বিষয়ে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক তপন কুমার সরকারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোন নম্বরে কল দেওয়া হলে তিনি রিসিভ করেননি।

 

রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এবার এসএসসি পাস করা সাদিকুর রহমান দিনভর চেষ্টা করেও ভর্তির আবেদন করতে পারেনি। রাতে সাদিকুর রহমান বলে, ‘প্রথমে ভেবেছিলাম আমাদের কম্পিউটার ও ইন্টারনেটে সমস্যা হয়েছে। পরে কম্পিউটার দোকানে গিয়েও আবেদন করতে পারিনি। ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। এখন শুনছি সার্ভার জটিলতা।’

 

ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, একাদশ শ্রেণিতে এবারও তিন ধাপে আবেদন, ফল প্রকাশ এবং মাইগ্রেশনের পর চূড়ান্ত ভর্তি নেওয়া হবে। নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা ১৫-২৫ জুলাই পর্যন্ত ভর্তি হতে পারবে। এরপর ৩০ জুলাই সারাদেশে একযোগে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে।

 

এক নজরে ৩ ধাপে আবেদন ও ফল প্রকাশের সূচি

প্রথম ধাপ: এ ধাপে আবেদন শুরু হবে ২৬ মে সকাল ৮টায়, চলবে ১১ জুন রাত ৮টা পর্যন্ত। ১২-১৩ জুন আবেদন যাচাই-বাছাই ও আপত্তি নিষ্পত্তি এবং পছন্দক্রম পরিবর্তনের সুযোগ দেওয়া হবে।

 

একই সময়ে (১২-১৩ জুন) এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণে ফলাফল পরিবর্তিত হওয়া শিক্ষার্থীদের আবেদন গ্রহণ করা হবে। ১৪-১৮ জুন ঈদুল আজহা উপলক্ষে অনলাইন সার্ভিস ও কল সেন্টার বন্ধ থাকবে।

 

আগামী ২৩ জুন রাত ৮টায় প্রথম ধাপে আবেদনকারীদের ফল প্রকাশ করা হবে। ২৩ জুন ফল প্রকাশের পর থেকে ২৯ জুন রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীর নির্বাচন নিশ্চায়ন করতে হবে। ৪ জুলাই পছন্দক্রম অনুযায়ী প্রথম মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশ করা হবে।

 

দ্বিতীয় ধাপ: ৩০ জুন শুরু হবে দ্বিতীয় ধাপের আবেদন। এ ধাপে আবেদন চলবে ২ জুলাই রাত ৮টা পর্যন্ত। ৪ জুলাই রাত ৮টায় দ্বিতীয় ধাপের ফল প্রকাশ করা হবে। ৫ থেকে ৮ জুলাই রাত ৮টা পর্যন্ত দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নিশ্চায়ন প্রক্রিয়া চলবে। ১২ জুলাই দ্বিতীয় মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশ করা হবে।

 

তৃতীয় ধাপ: ৯-১০ জুলাই তৃতীয় ধাপে আবেদন শুরু হবে। ১২ জুলাই তৃতীয় ধাপের ফল প্রকাশ এবং ১৩-১৪ জুলাই তৃতীয় ধাপে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নিশ্চায়ন করতে হবে।

 

 

ভর্তি: ১৫ থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত তিন ধাপে নির্বাচিত এবং সফলভাবে নিশ্চায়ন করা শিক্ষার্থীদের ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে। এরপর ৩০ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে সারাদেশে একযোগে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে।

 

একাদশে সারাদেশে আসন কত

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ১১ শিক্ষাবোর্ডে মোট পাস করেছে ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৫৩ জন শিক্ষার্থী। দেশের সরকারি-বেসরকারি কলেজ, মাদরাসা, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মোট আসন প্রায় ৩৪ লাখ। সে হিসাবে সব শিক্ষার্থী ভর্তি হলেও ফাঁকা থাকবে অর্ধেকের বেশি আসন।